অনেক দিন ধরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলছো, তোমাকে বুঝতে হবে কিভাবে পরিস্থিতি সামলাবে। ’‘১০৬ স্ট্রাইক রেটে ম্যাচ জেতা যাবে না’

বাংলাদেশের হয়ে সবচেয়ে বেশি ১১৯টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন মাহমুদ উল্লাহ। ২৪ টি-টোয়েন্টিতে ১২ জয় নিয়ে তিনিই এখন সংক্ষিপ্ততম সংস্করণে বাংলাদেশের সবচেয়ে সফল অধিনায়ক। অথচ

এক বছর ধরে তার ধীরগতির ব্যাটিং নিয়েই প্রশ্ন উঠে গেছে। গত বিশ্বকাপ থেকে এ পর্যন্ত ১৪ ম্যাচে তার গড় ১৭.৪১, স্ট্রাইক রেট মাত্র ১০০.৪৮! আজ সোমবার মাহমুদ উল্লাহর বিষয়ে সাংবাদিকদের

প্রশ্নবাণের জবাব দিতে হয়েছে খালেদ মাহমুদ সুজনকে। বিজ্ঞাপন তিনি খোঁচা মারতেও ছাড়েননি। সুজন বলেন, ‘আমরা এশিয়া কাপে যাওয়ার আগে দুটি অনুশীলন ম্যাচ খেলতে চাই, ম্যাচ

পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে চাই। সবাইকে সবার দায়িত্বটা এবার বুঝিয়ে দেব। এটা সরাসরি বলা হবে, তাদের কাছে আমরা কী চাই। কারণ আপনি ১০৬ স্ট্রাইক রেট কিংবা ১১০ স্ট্রাইক রেটে ব্যাট করে

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে জিততে পারবেন না। আপনাকে অবশ্যই ১৪০-১৫০ স্ট্রাইক রেটে ব্যাট করতে হবে। আপনি যদি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফলো করেন, তাহলে দেখতে হবে তারা কত স্ট্রাইক

রেটে ব্যাট করে। ’ স্ট্রাইক রেট নিয়ে দল এত সিরিয়াস, তাহলে মাহমুদ উল্লাহকে কেন নেওয়া হলো এশিয়া কাপের দলে? তার স্ট্রাইক রেট তো সবচেয়ে খারাপ। জবাবে সুজন বলেন, ‘ক্রিকেটারদেরকেই

তাদের খেলার ধরনটা বুঝতে হবে। প্রতিপক্ষ বিবেচনা করে আপনার যখন দরকার হবে তখন ওভারে ৭-৮ নিয়ে খেলতে হবে, আবার কখনো ১৪-১৫ নিয়ে খেলতে হবে। আউট হয়ে গেলে আউট হবেন।

কিন্তু ১৪ করার প্রয়োজনে আপনি ওভারে ৬ নিয়ে খেলবেন, এটা তো ঠিক না। এই সিদ্ধান্ত ক্রিকেটারকে নিতে হবে। এটা তো কোচের শিখায়ে দেওয়ার কিছু নাই। আপনি অভিজ্ঞ, অনেক দিন ধরে

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলছেন, আপনাকে বুঝতে হবে কিভাবে পরিস্থিতি সামলাবেন। ’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *