অবিশ্বাস্য,যে কারণে আফগানিস্তানের বোলারকে ব্যাট দিয়ে মারতে গিয়েছিলেন আসিফ আলি

চলমান এশিয়া কাপের সুপার ফোরের প্রতিটি ম্যাচই ছিল উত্তেজনায় ভরপুর। টুর্নামেন্টের সবশেষে ম্যাচে মুখোমুখি হয় পাকিস্তান-আফগানিস্তান। গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচটিতে শেষ মুহূর্তে নবী-রশিদদের হারায় বাবর-নাসিমরা।

রুদ্ধশাস ম্যাচেও ছিল টান টান উত্তেজনা। ম্যাচের শেষ মুহূর্তে আফগানিস্তানের ফরিদ আহমেদকে ব্যাট উঁচিয়ে মারতে চেয়েছিলেন
পাকিস্তানের আসিফ আলী।

১৩০ রানের লক্ষ্য ব্যাট করতে নামা পাকিস্তানের শেষ দুই ওভারে দরকার ২১ রানের, হাতে ৩ উইকেট। তখন ব্যাটিংয়ে ছিলেন কেবল আসিফ আলী। এর মধ্যে ফরিদ আহমেদের করা ১৯তম ওভারের দ্বিতীয় বলে আউট হয়ে যান হারিস রউফ।

তখন পাকিস্তেনর একমাত্র ভরসা হয়ে দাঁড়ায় আসিফ আলী। ওভারের চতুর্থ বলে বিশাল এক ছক্কা হাঁকিয়ে পাকিস্তানকে জয়ের আশাও দেখান এই হার্ডহিটার। কিন্তু পরের বলেই আউট হয়ে যান আসিফ। শর্ট ফাইন লেগে সহজ ক্যাচ নেন করিম জানাত।

ম্যাচের এমন গুরুত্বপূর্ণ মুহূত্যে আউট হয়ে যেন নিজেকে সামলাতে পারেননি আসিফ। কারণ তিনি ভালো করেই জানতেন, তার আউটের পর দলে আর ভালো ব্যাটার নেই। তাই নিজের ওপরই হয়তো তার রাগ হচ্ছিল এই ব্যাটারের। ম্যাচের এমন উত্তেজনাকর মুহূর্তে আউট হয়ে মেজাজটা আর ধরে রাখতে পারলেন না আসিফ।

এমন মুহূর্তে উইকেট পেয়ে আসিফের সামনে এসে কিছু একটা বলেন ফরিদ। আসিফ মেজাজ হারান, ব্যাট উঁচিয়ে আফগান পেসারকে মারতে যান। পরে আরেক আফগান ফিল্ডার এসে সরিয়ে নেন আসিফকে। তাকে আটকাতে ছুটে আসেন হাসান আলীও।

এতে মাঠে অপ্রতিকর ঘটনা থেকে বেঁচে যায় আসিফ-ফরিদ। আসিফ রাগ নিয়ে মাঠ ছাড়েন। তবে শেষ পর্যন্ত তার রাগ হয়তো কমেছে। কারণ আফগানদের বিপক্ষে নাসিম শাহের অবিশ্বাস্য দুই ছক্কায় দুর্দান্ত জয় পায় পাকিস্তান। সেই জয়ে এশিয়া কাপের ফাইনালই নিশ্চিত হয়ে যায় বাবর আজমের দলের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *