অস্ট্রেলিয়ার ক্ষতিপূরণ পোষাতে পাকিস্তানের দারস্ত হয়েছে আফগানিস্তান

কথা দিয়ে কথা রাখেনি ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ)। বাতিল করেছে আফগানিস্তানের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ। যা নিয়ে ক্ষোভ ঝেড়েছে দেশটির ক্রিকেট বোর্ডসহ খেলোয়াড়রাও।

তবে এই ক্ষতি পোষাতে নতুন পথ খুঁজছে আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (এসিবি)। যে জন্য তারা দ্বারস্থ হয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি)। মার্চে অস্ট্রেলিয়ার বদলে পাকিস্তানের বিপক্ষে

আরব আমিরাতে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ আয়োজনের প্রস্তাব দিয়েছে এসিবি। পিসিবিও এই প্রস্তাবকে ইতিবাচক হিসেবে নিয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে পিসিবির একটি সূত্র। সব ঠিক থাকলে

মার্চের শেষ অথবা মাঝামাঝি দিকে হতে পারে আফগানিস্তান-পাকিস্তান সিরিজ। পাকিস্তান সুপার লিগের (পিএসএল) অষ্টম আসর শেষ হওয়ার পর ও নিউজিল্যান্ড সিরিজের মাঝামাঝি হতে পারে

দ্বিপাক্ষিক এই সিরিজটি। এদিকে আগস্টে ওয়ানডে সুপার লিগের অংশ হিসেবে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলার কথা রয়েছে আফগানিস্তান ও পাকিস্তানের। কিন্তু মার্চে সিরিজটি অনুষ্ঠিত

হলে সেটা ওয়ানডে সুপার লিগের অংশ হবে না। আফগানিস্তানে তালেবানরা ক্ষমতায় আসার পর দেশটিতে থমকে গেছে মেয়েদের ক্রিকেট। সম্প্রতি তারা ঘোষণা দিয়েছে মেয়েদের জন্য বন্ধ হয়ে

যাচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয়ের উচ্চশিক্ষার দরজাও। নারীদের ওপর নানা ধরনের বিধিনিষেধ আরোপের পরই ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া সিরিজ বাতিলের সিদ্ধান্ত নেয়। একই কারণে ২০২১ সালের নভেম্বরে ঘরের

মাঠে আফগানিস্তানের বিপক্ষে একমাত্র টেস্ট ম্যাচটি খেলেনি অজিরা। সিরিজ বাতিল করায় ক্ষতি হবে অস্ট্রেলিয়ারই, তিন ম্যাচের ৩০ পয়েন্ট দেওয়া হবে আফগানিস্তানকে। এরপরও এমন কঠিন

সিদ্ধান্ত নিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। এই পয়েন্ট হাতছাড়া হওয়ায় অবশ্য সমস্যায় পড়তে হচ্ছে না অস্ট্রেলিয়াকে। সুপার লিগের র‌্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষ আট দলের মধ্যে থেকে ইতোমধ্যে আগামী অক্টোবরে ভারতে

অনুষ্ঠেয় ওয়ানডে বিশ্বকাপে খেলা নিশ্চিত করেছে তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *