অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে অজিদের হারানোর পর কঠিন মন্তব্য করলেন,রায়ান বার্ল

অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে স্বাগতিকদের বিপক্ষে ওয়ানডেতে প্রথম জয়, সেটাও আবার ৬৬ বল আর ৩ উইকেট হাতে রেখে। এই দিনটা জিম্বাবুয়ের ইতিহাসে নিশ্চিতভাবেই স্বরণীয় হয়ে থাকবে। অজিদের হারিয়ে এমন রূপকথা লেখার ম্যাচ থেকে আত্মবিশ্বাসও খুঁজে পাচ্ছেন রোডেশিয়ানরা। এই জয় আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাড়তি অনুপ্রেরণা যোগাবে দলকে এমনটাই বিশ্বাস করেন রায়ান বার্ল।

টস হেরে আগে ব্যাটিংয়ে নেমে অস্ট্রেলিয়া খেলতে পারে মোটে ৩১ ওভার। করে ১৪১ রান। কেবল ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার করেন ১৪টি চার এবং দুটি ছক্কায় ৯৬ বলে ৯৪ রান। এ ছাড়া দুই অঙ্ক ছুঁতে পেরেছেন কেবল গ্লেন ম্যাক্সওয়েল (১৯)।

জিম্বাবুয়ে এ দিন শুরু থেকেই দলগতভাবে অসাধারণ বোলিং করতে থাকে। তবে শেষ দিকে আতঙ্ক ছড়ান রায়ান বার্ল। মাত্র তিন ওভার করে ১০ রান খরচায় ৫ উইকেট নেন তিনি। এ ছাড়া ব্র্যাড ইভান্স দুটি এবং রিচার্ড এনগারাভা, ভিক্টর এনাউচি ও শন উইলিয়ামস একটি করে উইকেট নেন। এরপর ব্যাটিংয়ে নেমে ৭ উইকেট হারিয়ে ৩৯ ওভারেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় জিম্বাবুয়ে।

ম্যাচ শেষে বার্ল বলেন, ‘এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ (জিম্বাবুয়ের জন্য এই জয়)। দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দিতে পারিনি কিন্তু এই রানটা খুবই প্রয়োজনীয় ছিল। এই জয়টা আত্মবিশ্বাস যোগাবে। বিশ্বকাপ খেলতে এবারও এখানে আসবো, তখন এটা আত্মবিশ্বাস দেবে।’

জিম্বাবুয়ে যে ভালো খেলেই অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়েছে তা ম্যাচ শেষে স্বীকার করেছে অজি অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চও। তার মতে, রোডেশিয়ানরা বেশ ভুগিয়েছে তাদের। বিশেষ করে বোলিংয়ে দুর্দান্ত ছিল জিম্বাবুয়ের বোলাররা।

ম্যাচ শেষে ফিঞ্চ বলেন, ‘জিম্বাবুয়ে বল হাতে অসাধারণ ছিল। তারা আমাদের ভুগিয়েছে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আপনি কিছুই ফেলনা ভাবতে পারেন না। আপনি যেকোনো দিনেই হারতে পারেন, তারা আজ সেটা দেখিয়েছে। বল হাতে আমরাও চেষ্টা করেছি, তবে সেটা যথেষ্ট ছিল না।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *