ইয়াসির আলী নাকি মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ শেষ পর্যন্ত কে থাকছে বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি স্কোয়াডে

অধিনায়কত্ব হারিয়েছেন অনেক আগেই, এবার বাংলাদেশ টি-টোয়েন্টি দল থেকে বাদ পড়ার একদম কাছে দাঁড়িয়ে রয়েছেন সাবেক অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। যদিও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে বাদ পড়েও আবারও দলে ডাকা হয়েছিল মাহমুদুল্লাহ রিয়াদকে।

এরপর এশিয়া কাপে দলের সাথে গেলেও প্রত্যাশা অনুযায়ী পারফরম্যান্স করতে না পারায় আগামী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে ফেলা হতে পারে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদকে। যদিও অভিজ্ঞতার কারণে বিশ্বকাপে টিকে যাচ্ছেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ তবে তার বিকল্প হিসেবে দলে থাকবেন আরো একজন ব্যাটসম্যান

এশিয়া কাপে দুই ম্যাচে চাপের মুহুর্তে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুটা ভালই করেছিলেন মাহমুদুল্লাহ। সুযোগ ছিল সব সমালোচনার জবাব দেয়ার। কিন্তু দলের যখনই রানের প্রয়োজন ছিল তখনই আউট হয়ে ফিরেছেন মাহমুদুল্লাহ। প্রথম ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ২৭ বলে ২৫ রানের পর ইনিংসে বড় করতে পারেননি মাহমুদুল্লাহ।

এরপর শ্রীলংকার বিপক্ষে ম্যাচেও শুরুটা ভালো করেছিলেন তিনি। ওই ম্যাচেও ২২ বলে ২৭ করেছিলেন মাহমুদুল্লাহ। কিন্তু দলের যখন রান প্রয়োজন তখনই আউট হয়েছেন তিনি। ব্যাট হাতে মোটামুটি রান পেল বল খেয়েছেন অনেক। সেই সাথে দুই ম্যাচ মিলে তিনি চার মেরেছেন দুটি এবং ছক্কা হাকিয়েছেন একটি।

তবে মুশফিকুর রহিম না থাকায় দলের মিডিল অর্ডারে একজন অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান প্রয়োজন বাংলাদেশের। দলের অধিনায়ক সাকিব আল হাসান ও চাচ্ছেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদকে। জানা গেছে শ্রীধরন শ্রীরামের মত আছে সাকিবের সাথে। তবে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের বিকল্প হিসাবে দলে রাখা হচ্ছে ইয়াসের আলী রাব্বিকে। সেরা একাদশে সুযোগ পেতে হলে রাব্বির সাথে লড়াই করতে হবে মাহমুদুল্লাহকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *