এবার কোহলিকে নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন,শোয়েব আখতার

গত রোববার দুবাই আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে পাকিস্তান’কে ৫ উইকেটে হারিয়ে দারুণ ভাবে এশিয়া কাপ অভিযান শুরু করেছিলো ভারতীয় ক্রিকেট দল। ফের সপ্তাহ ঘুরতে আরেক এক’ই মাঠে এশিয়া কাপের সুপার ফোরের ম‍্যাচে মুখোমুখি হতে চলেছে দুই দল। এই টুর্নামেন্টের মধ্যে দিয়ে ইংল্যান্ড সফরের পর ফের আরেকবার জাতীয় দলের হয়ে খেলতে নেমেছিলেন বিরাট কোহলি।

চলতি এশিয়া কাপে রানে ফেরার ইঙ্গিত মিলেছে কোহলির ব‍্যাটে। তিনি প্রথম ম‍্যাচে পাকিস্তানের বিপক্ষে ৩৫ রান এবং হংকংয়ের বিরুদ্ধে ৪১ বলে ৫৯* রানের ইনিংস খেলেছিলেন‌। দ্বিতীয় ম‍্যাচে সূর্য কুমার যাদবের সাথে অপরাজিত ৯৮ রানের পার্টনারশিপ জুড়েছিলেন, এমন একটি সময়, প্রাক্তন পাকিস্তানের পেসার শোয়েব আখতার বলেছেন, তিনি মনে করেন

১০০ টি আন্তর্জাতিক সেঞ্চুরি করতে হলে কোহলি’কে অবশ্যই একটা ফর্ম‍্যাটে খেলা ছাড়তে হবে। বর্তমানে বিশ্বের একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে ১০০ টি সেঞ্চুরি আছে শুধুমাত্র সচিন তেন্ডুলকরের।
নিজের ইউটিউব চ‍্যানেলের ভিডিওতে শোয়েব বলেছেন, “এখনও বিরাট কোহলি’কে তার চেনা ফর্মে পাওয়া যাচ্ছে না। তবে আমি কোহলি’কে বলবো‌ এবছর টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ অবধি দেখে নিতে এই টি ২০ ফর্ম‍্যাট ওর ধাতে সহ‍্য হচ্ছে কিনা। এখনও ৩০ টা সেঞ্চুরি করতে হবে ওকে।”

এখনও অবধি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট আসরে ৭০ টি সেঞ্চুরি আছে বিরাট কোহলির। ২০১৯ সালে নভেম্বর মাসের পর কোনও সেঞ্চুরি করতে পারেননি তিনি।“তোমার মধ্যে কিংবদন্তি ক্রিকেটার হয়ে ওঠার সমস্ত গুন আছে। কিন্তু তোকে সর্বকালের কিংবদন্তি হয়ে উঠতে হবে। নিশ্চিত ভাবে আগামী ৩০ টা সেঞ্চুরি, কোহলির কেরিয়ারের অন‍্যতম গুরুত্বপূর্ণ তিনটি সেঞ্চুরি হতে চলেছে। লম্বা ফর্ম‍্যাটে ও সময় পাবে থিতু হতে কিন্তু টি টোয়েন্টি ফর্ম‍্যাটে সেটা সম্ভব নয়।

কারণ ভালো স্ট্রাইক রেট বজায় রেখে খেলতে হয়। পাশাপাশি নিশ্চিত করতে হয় দলের জয়। কোহলি খুব ইতিবাচক, অসাধারণ একজন ক্রিকেটার। আমি মনে প্রানে চাই ও ১০০ টা সেঞ্চুরি করুক। সচিন তেন্ডুলকরের রেকর্ড ভাঙুক। এখন ব‍্যাপারটা অবিশ্বাস্য মনে হলেও আমার বিশ্বাস উনি পারবেই।”

এছাড়া এই ভিডিওটতে রোহিত শর্মা ফর্মে নেই বলে দাবী করেছিলেন শোয়েব, তিনি বলেছিলেন,“অধিনায়ক হিসেবে রোহিত শর্মা একটা চাপের মধ্যে রয়েছে বলে মনে করি আমি। ও এখন আর ক‍্যাপ্টেন্সি উপভোগ করছেনা। বেশি চাপ নিয়ে ফেলছে বলে ফর্মে প্রভাব পড়ছে।”

চলতি বছরে এখনও অবধি মোট ১৫ টা ম‍্যাচ খেলেছে রোহিত। সেখানে ২৩.০৭ গড়ে তিনি করেছিলেন ৩২৫ রান। এরমধ্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে একটা হাফ সেঞ্চুরি আছে। আখতার বলেছেন,

“কোমরের চোট সারিয়ে জাতীয় দলে প্রত‍্যাবর্তন করার পর থেকেই দারুণ ছন্দে আছেন হার্দিক পান্ডিয়া। অধিনায়ক হিসেবে গুজরাট টাইটান্স’কে প্রথম বছরেই আইপিএল জিতেছিলো, ভবিষ্যতে ভারতের টি ২০ দলের অধিনায়ক হিসেবে হার্দিক’কে দেখতে পাচ্ছি আমি।”

এদিন ভারত – পাকিস্তান ম‍্যাচ কেনো নিরপেক্ষ মাঠে আয়োজন করা হয় না কেনো। সেটা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছিলো শোয়েব। ২.৫ বিলিয়ন মানুষ যে ম‌্যাচ নিয়ে বড় অপেক্ষায় থাকে, সেখানে তিনি দাবি করেছেন দুই দেশের মাটিতেও ম‍্যাচ খেলানো হোক। তিনি বলেন,

“প্রতিটি ম‍্যাচ দুবাইতে খেলা হয় কেনো ? দিল্লি, চান্ডিগর, লাহোর খেলা হচ্ছেনা কেনো, ওখানে খেলা হলে দর্শকের ঠাসাঠাসি’তে জমাটি হবে পরিবেশন। আমাদের এবিষয়ে বিশেষ পরিকল্পনা নিতে হবে। গতবছর পাকিস্তান টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দারুণ পারফরম্যান্স দিয়েছিল ভারত’কে হারিয়ে দিয়ে। এবারও দুই দেশের মধ্য ফের আরেকটা উত্তেজনাময় ম‍্যাচ’এর সাক্ষী থাকতে চলেছে ক্রিকেট বিশ্ব।”

প্রাক্তন পাক পেসার ভারত – পাক সরকারের কাছে অনুরোধ করেছেন। রাজনৈতিক চাপানোতর সম্পর্কিত বিবাদ মিটিয়ে ফেলুক ভারত – পাকিস্তান। গত ৭৫ বছরে কে কাকে টেক্কা দেয়, সেটাই চলে আসছে। রোববার এশিয়া কাপের সুগার পর্বে ভারত- পাকিস্তান মুখোমুখি হতে চলেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *