চ্যাম্পিয়ন্স লিগে লেভানদোভস্কির ইতিহাস গড়া হ্যাটট্রিকে বার্সার বড় জয়

গত মৌসুমে ইউরোপের শ্রেষ্ঠত্বের শিরোপা লড়াইয়ে অংশ নিতে পারেনি বার্সেলোনা। এক মৌসুম পর ফিরে এসে দুর্দান্ত শুরু করেছে কাতালানরা। লিওনেল মেসি যাওয়ার পর ভঙ্গুর বার্সেলোনা নতুন করে সাজাতে চলতি মৌসুমে ১৫ কোটি ৩০ লাখ ইউরো ঢেলেছে স্প্যানিশ ক্লাবটি। যার ফল মিলতে শুরু করেছে

চলতি মৌসুমে বার্সা যে কয়জন নতুন সাইনিং করিয়েছে তারদের মধ্যে অন্যতম রর্বাট লেভানদোভস্কি। লা লিগায় তিনি ইতোমধ্যে ৪ ম্যাচ থেকে ৫ গোল আদায় করে নিয়েছেন। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে গতকাল তুলে নিয়েছেন মৌসুমের প্রথম হ্যাটট্রিক।

নিজেদের মাঠে ম্যাচের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত আক্রমণের পসরা মেলে একচেটিয়া আধিপত্য বিস্তার করে বার্সেলোনা। গোলের অসাধারণ ধারাবাহিকতায় চমৎকার হ্যাটট্রিকে ইতিহাস গড়েন লেভানদোভস্কি। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ইতিহাসে প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে তিনটি আলাদা দলের হয়ে হ্যাটট্রিক যে আর কারও নেই।

বরুশিয়া ডর্টমুন্ড থেকে বায়ার্ন মিউনিখ ঘুরে বার্সায়ও হ্যাটট্রিক হয়ে গেল পোলিশ তারকার।বুধবার (৭ সেপ্টেম্বর) ক্যাম্প নূয়ে ‘সি’ গ্রুপের ম্যাচে চেক রিপাবলিকের ক্লাবটি ভিক্টোরিয়া প্লজেনকে ৫-১ গোলে হারায় বার্সেলোনা। কাতালানদের হয়ে পোলিশ তারকা তিন গোল, একটি করে গোলের দেখা পান ফ্রাঙ্ক কেসি ও ফেরান তরেস। প্লজেনের হয়ে একমাত্র গোলটি করেন ইয়ান সিকোরা।

গত মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নিয়ে ২০০০-০১ মৌসুমের পর প্রথমবার ইউরোপা লিগে নেমে যায় বার্সেলোনা। এক মৌসুম পর ইউরোপ সেরার মঞ্চে ফেরার উপলক্ষটা দারুণ জয়ে রাঙাল তারা। পুরো ম্যাচে বার্সেলোনা ৭৬ শতাংশ সময় বল দখলে রেখে গোলের জন্য শট নেয় মোট ২০টি, যার ১১টিই ছিল লক্ষ্যে। প্লাজেনের নেয়া ৮ শটের একটি লক্ষ্যে ছিল।

তবে লেভার গোল উৎসবের আগে শুরুটা করেন চলতি মৌসুমে ক্লাবটিতে যোগ দেয়া ফ্রাঙ্ক কেসি। ম্যাচে ১৩তম মিনিটে এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা। কর্নারের পর জুল কুন্দের হেড পাসে কাছ থেকে হেডেই কাতালান জার্সিতে নিজের প্রথম গোল করেন আইভরি কোস্টের মিডফিল্ডার কেসিয়ে। বার্সার ইতিহাসে একাদশের হয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগে অভিষেকে কেসির দ্রুততম (১৩ মিনিট) গোল।

এরপর ৩৪তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন বায়ার্ন থেকে সদ্য যোগ দেয়া আরেক তারকা লেভানদোভস্কি। সার্জিও রবার্তোর পাস ডি-বক্সের সামনে পেয়ে জায়গা বানিয়ে ডান পায়ের জোরাল শটে বল জালে পাঠান সাবেক বায়ার্ন মিউনিখ স্ট্রাইকার। এই গোলে রিয়াল তারকা করিম বেনজেমাকে (৮৬) ছাড়িয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে সর্বোচ্চ গোলদাতার তালিকায় এককভাবে তিন নম্বরে জায়গা করে নিলেন লেভানদোভস্কি (৮৭)। ওপরে কেবল ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো (১৪০) ও লিওনেল মেসি (১২৫)।

ম্যাচের ৪৪তম মিনিটে ব্যবধান কমায় সফরকারীরা। বাঁ দিক থেকে সতীর্থের ক্রসে হেডে গোল আদায় করে নেন চেক রিপাবলিকের মিডফিল্ডার ইয়ান সিকোরা। প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে আবার দলকে এগিয়ে নেন লেভানদোভস্কি। এবার ফরাসি ফরোয়ার্ড উসমান দেম্বেলের ডান দিক থেকে বক্সে বাড়ানো ক্রস দূরের পোস্টে ডাইভিং হেডে ঠিকানা খুঁজে নেন দুবারের ফিফা বর্ষসেরা ফুটবলার লেভা।

বিরতির পর নিজের হ্যাটট্রিক পূরণ করেন পোলিশ তারকা। ম্যাচের ৬৫তম মিনিটে আনসু ফাতির জায়গায় বদলি নামেন ফেরান তরেস। এক মিনিট পরই তার পাসে ডি-বক্সের বাইরে থেকে জোরালো শটে হ্যাটট্রিক পূরণ করেন লেভানদোভস্কি। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে এর আগে বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের হয়ে একবার ও বায়ার্নের জার্সিতে চারবার হ্যাটট্রিকের স্বাদ পান তিনি।

গতকালের ৩ গোল নিয়ে কাতালান জার্সিতে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে পাঁচ ম্যাচে তার গোল হলো ৮টি। সবগুলোই সবশেষ চার ম্যাচে। লা লিগায় টানা দুই ম্যাচে জোড়া গোলের পর সবশেষটিতে করেন একটি। এবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগে এই হ্যাটট্রিক। প্রতিযোগিতাটিতে তার গোলসংখ্যা বেড়ে হলো ৮৯টি।

লেভার হ্যাটট্রিকের ৬ মিনিট পর ৭১তম মিনিটে ব্যবধান আরও বাড়ান ফাতির বদলি হিসেবে নামা তরেস। দেম্বেলের ক্রসে বক্সে প্রথম স্পর্শে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন ২২ বছর বয়সী স্প্যানিশ ফরোয়ার্ড।

সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে শেষ চার ম্যাচে বার্সেলোনা প্রতিপক্ষের জালে দিয়েছে ১৬ গোল। নিজেরা খেয়েছে ২ গোল। গোলশূন্য ড্রয়ে এবারের লা লিগা শুরু করা দলটি পরের তিন ম্যাচে জেতে ৪-১, ৪-০ ও ৩-০ গোলে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *