জমে উঠেছে কাতার বিশ্বকাপ, গ্রুপ পর্ব থেকেই বাদ পড়তে যাচ্ছে বড় বড় দল নকআউট পর্বে আসতে পারে ছোট ছোট দল

এবারের ফুটবল বিশ্বকাপে একের পর এক চমক যেন অপেক্ষা করছে বিশ্ববাসীর জন্য। বিশ্বকাপের তিন দিন পার হতে না হতেই ২ বিশ্বকাপ ফেভারিটের বিশ্বকাপের সবচেয়ে ছোট দুটি দলের বিপক্ষে

হার শিকার করতে হয়েছে।এছাড়াও গতকাল পর্তুগাল- ঘানার ম্যাচেও প্রায় হয়ে গিয়েছিল অঘটন। তবে শেষ পর্যন্ত ফেভারিট পর্তুগালই জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে। এই বিশ্বকাপকে অনেকেই ছোট

দলের বিশ্বকাপ বলছে। টুর্নামেন্টের শুরু থেকেই যেভাবে ছোট দলগুলো পারফর্ম করছে সেক্ষেত্রে কথাটিকে ফেলে দেওয়ার খুব একটা সুযোগও নেই। গ্রুপ পর্ব থেকে ২ হেভি ওয়েট আর্জেন্টিনা এবং

জার্মানির ছিটকে যাওয়ার যথেষ্ট সম্ভাবনা রয়েছে। সেক্ষেত্রে নকআউট পর্বে উঠার সুযোগ পেয়ে যাবে অন্য দুটি তুলনামূলক কম শক্তির দল। যদিও এ ধরনের কোনো অঘটন ঘটার সম্ভাবনা বেশ

কম। আর্জেন্টিনা এবং জার্মানি দুই দলই দ্বিতীয় ম্যাচে শক্তভাবে ফিরে আসার সামর্থ্য রাখে। তবে কাতার বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত যা দেখা গিয়েছে তাতে ছোট দল বড় দলের পার্থক্য বেশ কমই চোখে

পড়েছে।বেলজিয়াম-কানাডা ম্যাচটিও ছিল অনেকটাই সেই রকম। ৩৬ বছর পর বিশ্বকাপ অঙ্গনে ফেরা কানাডার বিপক্ষে প্রায় হারতে হারতে জিতেছে বিগত আসরের ফাইনালিস্টরা। বিশ্বকাপের

অন্যতম ফেভারিট বেলজিয়াম কানাডার বিপক্ষে কোনো দাপটই দেখাতে পারিনি। পুরো ম্যাচে দুই দল সমানে সমানে খেলেছিল। ভাগ্য সহায় ছিল বলেই হয়তো ১-০ ব্যবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে

পেরেছে বেলজিয়াম। এছাড়া বিশ্বকাপ প্রস্তুতি ম্যাচে মিশরের বিপক্ষে ২-১ গোলে হেরে বসে বেলজিয়াম।আর্জেন্টিনা-সৌদি আরব, জার্মানি-জাপান, পর্তুগাল-ঘানা এবং বেলজিয়াম-কানাডা

চারটি ম্যাচেই ছোট দল বড় দলের কোনো পার্থক্যই যেন বোঝা যায়নি। কাতার বিশ্বকাপটিকে তাই ছোট দলের বিশ্বকাপ বলা যেতেই পারে। এই বিশ্বকাপে নকআউট পর্বে বেশ কিছু নতুন দল যেতে

পারে বলে মনে করছে অনেক ফুটবল বিশ্লেষকরা। তাদের মতো বেশ কিছু হেভি ওয়েট দল হয়তো নক আউট পর্ব পর্যন্ত যেতে পারবেনা অপরদিকে ফুটবল বিশ্ব কিছু নতুন দলকে নক আউট

পর্বে দেখতে পারে। নিজেদের প্রথম ম্যাচেই জয় দিয়ে শুরু করায় সৌদি এবং জাপানের নক আউট পর্বে যাওয়ার মোটামুটি একটি সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে ড্র করলে হয়তো

পরবর্তী পর্বের টিকেটও পেয়ে যেতে পারে এই দুটি দল। তাই বলাই যায় সামনের ম্যাচগুলোতে দারুন কিছুই অপেক্ষা করছে ফুটবল ভক্তদের জন্য। প্রতিটি ম্যাচই টানটান উত্তেজনাপূর্ণ হবে দিনশেষে

এটাইতো চাওয়া সমর্থকদের। কাতার বিশ্বকাপ এখন পর্যন্ত সেই চাওয়া বেশ ভালোভাবেই মিটিয়ে চলছে। পরবর্তীতে আরো কতগুলো অঘটন হয় এখন সেটাই দেখার পালা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *