দক্ষিণ আফ্রিকাকে ৯ উইকেটে হারিয়ে সিরিজ জয় ইংল্যান্ডের

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে তিন ম্যাচ টেস্ট সিরিজে ২-১ ব্যবধানে জয় পেল স্বাগতিক ইংল্যান্ড৷ ওভালে তৃতীয় ও শেষ টেস্টে সফরকারীদের হার ৯ উইকেটে৷বৃষ্টি বাঁধা এবং ব্রিটেনের রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথের মৃত্যুর কারনে টেস্ট নেমে আসে তিন দিনে৷ টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ১১৮ রানেই অলআউট হয় দক্ষিণ আফ্রিকা৷ যদিও সুবিধা করতে পারেনি ইংল্যান্ড৷ কেননা নিজেরাও অলআউট হয়েছিল মাত্র ১৫৮ রানে৷

দ্বিতীয় ইনিংসে ভালো কিছুর ইঙ্গিত দিয়েও ১৬৯ রানে অলআউট হয় সফরকারীরা। তাতে স্বাগতিকদের সামনে জয়ের লক্ষ্যমাত্রা দাঁড়ায় ১৩০ রান। এই রান তাড়া করতে নেমে বিনা উইকেটে ৯৭ রান তুলে দ্বিতীয় দিন শেষ করে ইংল্যান্ড। আলেক্স লিস ৩২ ও জ্যাক ক্রাউলি ৫৭ রানে অপরাজিত ছিলেন।

আজ সোমবার স্থানীয় সময় তৃতীয় দিন সকালে ১০৮ রানের মাথায় আউট হন লিস। ৪ চারে ৩৯ রান করেন তিনি। এরপর ক্রাউলি ও অলি পোপ মিলে ২২.৩ ওভারে দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন। ক্রাউলি ১২ চারে ৬৯ রানে ও পোপ ১ চারে ১১ রানে অপরাজিত থাকেন।

প্রথম ইনিংসে ৫ উইকেট ও দ্বিতীয় ইনিংসে ২ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরা হন অলি রবিনসন। আর ব্যাট হাতে ১৪৯ রান ও বল হাতে ১০ উইকেট নিয়ে সিরিজ সেরা হন অধিনায়ক বেন স্টোকস।

সিরিজের প্রথম টেস্ট ইনিংস ব্যবধানে হারের পর ইংল্যান্ডের বাজবল ক্রিকেট নিয়ে সমালোচনা হয়েছিল তীব্র থেকে তীব্রতর৷ তবে অধিনায়ক বেন স্টোকস জানিয়েছিলেন খেলার ধরণে পরিবর্তন আনবে না তার দল৷ দ্বিতীয় ম্যাচে ইনিংস ব্যবধানে হারিয়ে মধুর প্রতিশোধ নিতে সক্ষম হয়েছিল ইংলিশরা৷

এর মধ্য দিয়ে ইংল্যান্ড তাদের নতুন কোচ ব্রেন্ডান ম্যাককালাম ও নতুন অধিনায়ক স্টোকসের নেতৃত্বে খেলা সবশেষ সাত টেস্টের ছয়টিই জিতলো। তার আগে জো রুটের নেতৃত্বে ১৭ টেস্টের মাত্র ১টিতে জিতেছিল ইংলিশরা।অন্যদিকে এই সিরিজ হারার মধ্য দিয়ে নতুন অধিনায়ক ডিন এলগারের সময়ে প্রথমবার সিরিজ হাতছাড়া করলো দক্ষিণ আফ্রিকা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *