দলের সম্মান রক্ষায় হাতে ব্যান্ডেজ নিয়েই ব্যাটিংয়ে নেমে নিজেকে বিলিয়ে দিয়েছিলেন ভারতীয় অধিনায়ক রোহিত শর্মা!

দলের প্রয়োজনে নিজেকে বিলিয়ে দেওয়ার উদাহরণ ক্রিকেটে অনেক। নিজের দলকে এগিয়ে রাখতে অনেক ক্রিকেটারই ঝুঁকির মধ্যে ফেলেছেন নিজেকে। যেমন, ২০১৮ সালের এশিয়া কাপে

ভাঙা হাত নিয়ে ব্যাটিং করে দর্শকদের মন কেড়েছিলেন তামিম ইকবাল। এরকমই এক উদাহরণ এবার দেখালেন রোহিত শর্মা। আঙুলের চোট নিয়েও দলের প্রয়োজনে আজ ব্যাটিং করেছেন তিনি।

বুধবার মিরপুর শের-ই বাংলা স্টেডিয়ামে সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ভারতের মুখোমুখি হয়েছিল বাংলাদেশ। রোহিত শর্মার লড়াকু ইনিংসের কারণে শেষ বল পর্যন্ত খেলতে হয়েছে বাংলাদেশকে, যদিও

টাইগাররা জিতেছে ৫ রানে। দিনের খেলার শুরুতেই স্লিপে দাঁড়িয়ে ক্যাচ নিতে গিয়ে হাতে চোট পেয়ে হাসপাতালে ছুটেছিলেন রোহিত শর্মা। এরপর আর ফিল্ডিংয়ে নামেননি ভারতীয় অধিনায়ককে।

ব্যাটিংয়েও নিজের নিয়মিত পজিশন ওপেনিংয়ে নামেননি তিনি। তবে দলের প্রয়োজনে সবাইকে অবাক করে দিয়ে ভারতের ইনিংসের নবম ব্যাটার হিসেবে ক্রিজে আসেন রোহিত। ব্যাটে নামার পর

দেখা গেছে ব্যান্ডেজ আছে রোহিতের হাতে। প্রথমদিকে ঠিকভাবে ব্যাটও করতে পারছিলেন না। তবে ধীরে ধীরে বিধ্বংসী হয়ে ওঠেন তিনি। ২৮ বলে ৫১ রানের ইনিংস খেলে দলকে নিয়ে গেছেন

শেষ বল পর্যন্ত। মুস্তাফিজের শেষ বলে আর জেতাতে পারেননি দলকে। ২৭২ রানের লক্ষ্যতাড়ায় রোহিতদের থামতে হয় ২৬৬ রানে। এর আগে বাংলাদেশ ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে মোহাম্মদ সিরাজের

বলে স্লিপে ক্যাচ তোলেন এনামুল হক বিজয়। ক্যাচ লুফে নিতে পারেননি স্লিপে ফ্লিডিং করা খেলোয়াড় রোহিত শর্মা। তবে এ ক্যাচ নিতে গিয়ে আঙুলে চোট পান রোহিত। তখনই মাঠ ছাড়েন ভারতীয়

অধিনায়ক। পরবর্তীতে আঙুলে স্ক্যান করার জন্য হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় রোহিতকে। ভারতীয় অধিনায়কের এ চোটের ব্যাপারে এখন পর্যন্ত কিছুই জানায়নি বিসিসিআই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *