নতুন অধিনায়কের নেতৃত্বে এশিয়া কাপের ফাইনালে খেলতে চাই : সুজন

এবারের এশিয়া কাপ হবে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে। ক্রিকেটের এই সংক্ষিপ্ত সংস্করণে বাংলাদেশ বেজায় দুর্বল। দলে নেই কোনো হার্ডহিটার। তার ওপর চোটের হানায় নেই ইনফর্ম ক্রিকেটাররা।

এমতাবস্থায় ২৭ আগস্ট থেকে শুরু হতে যাওয়া এশিয়া কাপে ভালো কিছুর আশা করাই কঠিন। গ্রুপ পর্ব পার হওয়া নিয়েই তো সংশয় আছে। কিন্তু জাতীয় দলের টিম ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন

দাবি করলেন, বাংলাদেশ এবারের এশিয়া কাপের ফাইনালে খেলবে। আজ সোমবার মিরপুর শেরে বাংলায় সাংবাদিকদের খালেদ মাহমুদ বলেন, ‘আমাদের প্রথম দুটি ম্যাচ, আফগানিস্তান

ও শ্রীলঙ্কার সঙ্গে। ম্যাচগুলো আমরা জিততে চাই। শারজাহ ও দুবাইতে খেলা। উইকেট ও ওখানকার কন্ডিশন আমাদের জানা। ওখানে কী হবে, আমরা জানি। ওসব মাথায় রেখেই আমরা পরিকল্পনা

করছি। এশিয়া কাপের দ্বিতীয় পর্বে যাওয়া নিয়ে অনেকের মধ্যেই প্রশ্ন, যেহেতু আমরা এই ফরম্যাটে ভালো করছি না। কিন্তু আমি বিশ্বাস করি, আমরা এটা পারব, সেখানে ভালো করতে পারব। আগেও

বাংলাদেশ এশিয়া কাপের ফাইনাল খেলেছে। ফরম্যাট ৫০ ওভার হোক বা টি-টোয়েন্টি, আমরা ফাইনাল অবশ্যই খেলতে চাই। চাই প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে, ভালো ক্রিকেট খেলতে। ‘ নতুন অধিনায়ক

সাকিব আল হাসানের নেতৃত্বে বাংলাদেশ দল আগ্রাসী ক্রিকেট খেলবে বলেই ধারণা টিম ডিরেক্টরের, ‘জিম্বাবুয়ে যাওয়ার আগেই বলেছিলাম, “ফিয়ারলেস” কথাটায় বারবার গুরুত্ব দিচ্ছি। সেখানে

প্রথম দুই টি-টোয়েন্টিতে আমরা ভয়ডরহীন ক্রিকেট খেলেছি। কিন্তু শেষ ম্যাচে পারিনি। যেভাবে চাই, সেভাবে খেলতে পারিনি। সাকিব ফিরেছে (নেতৃত্বে), এটা খুবই ইতিবাচক দিক। এই

ফরম্যাটে সাকিব সবচেয়ে অভিজ্ঞ। দুনিয়াজুড়ে এই ক্রিকেট সে অনেক খেলে। সাকিব একটু আগ্রাসী অধিনায়ক। আমরা ওরকম ক্রিকেটই খেলতে চাই । আমি বলছি না যে বাংলাদেশ হুট করে

বদলে গিয়ে এশিয়া কাপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে যাবে। কিন্তু আমরা ওই পথটা ধরতে চাই, কীভাবে আমরা এই ফরম্যাটে ভালো করতে পারব। ‘

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *