বাংলাদেশের মত ভারতকেও ২-১ ব্যবধানে হারানোর হুমকি দিলেন জিম্বাবুয়ে

বাংলাদেশকে স্তব্ধ করে দিয়ে টি-টোয়েন্টি ও ওয়ানডে সিরিজ জিতে নেয় জিম্বাবুয়ে। এবার ভারতের মতো শক্তিশালী দলকেও একই ব্যবধানে হারিয়ে দেওয়ার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন বাংলাদেশের

বিপক্ষে সেঞ্চুরি করা ইনোসেন্ট কাইয়া। বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে দলের চাপে রান তাড়ায় দারুণ সেঞ্চুরি করেন কাইয়া। সিকান্দার রাজার সঙ্গে ম্যাচ জেতাতে রাখেন বড় ভূমিকা।

বাংলাদেশকে হারানোর পর এবার আরও বড় চ্যালেঞ্জ সামনে জিম্বাবুয়ের। ওয়ানডে সুপার লিগের সিরিজে তাদের প্রতিপক্ষ ভারত। ভারত যদিও জিম্বাবুয়েতে তাদের সেরা দলটি পাঠায়নি।

অধিনায়ক রোহিত শর্মাসহ নিয়মিত একাদশের বেশ কয়েকজন নেই। তবে লোকেশ রাহুলের নেতৃত্বে থাকা দলটিও জিম্বাবুয়ের থেকে অনেক অনেক শক্তিশালী। বাংলাদেশের মতো এই সিরিজেও

জিম্বাবুয়ে পাচ্ছে না তাদের নিয়মিত অধিনায়ক ক্রেইক আরভিন, অভিজ্ঞ শন উইলিয়ামস। সেরা দুই বোলার ব্লেসিং মুজারাবানি ও টেন্ডাই চাতারাকে। এসব প্রতিকূলতার দিকে কোন নজরই নেই

কাইয়ার। ডানহাতি এই ব্যাটার একদম দৃঢ়তার সঙ্গে জানালেন, বাংলাদেশের মতো ভারতকেও ধরাশায়ী করতে যাচ্ছেন তারা, ‘ভারতকে হারাতে পারব বলেই মনে হচ্ছে। আমরা ২-১ ব্যবধানে সিরিজ

জিতব। আমি এই সিরিজে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক হতে চাই। একটার বেশি সেঞ্চুরি করতে চাই। আমি খুব সাধারণ পরিকল্পনা করেছি।’ সাবেক ক্রিকেটার ডেভ হটন দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই শরীরী

ভাষায় অনেক বদল এসেছে জিম্বাবুয়ের। যেকোনো পরিস্থিতিতেই তারা এখন ভয়ডরহীন বলে জানান কাইয়া, ‘কোচ ডেভ আমাদের ইতিবাচক কথা বলেন। শুধু ব্যাটিং, বোলিং, ফিল্ডিং নয়, এটা

মানসিকতার বিষয়। মানসিকতায় বদল আসায় আমাদের খেলার ধরণও বদলে গেছে। জেতাটা এখন আমাদের কাছে সাধারণ বিষয়।’ বৃহস্পতিবার (১৮ অগাস্ট) সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে নামবে

ভারত-জিম্বাবুয়ে। সিরিজের বাকি দুই ম্যাচ ২০ ও ২২ অগাস্ট। সবগুলো ম্যাচই হবে হারারে স্পোর্টস ক্লাব মাঠে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *