ব্রাজিল বনাম ক্রোয়েশিয়া, পাল্লা ভারী কার? জেনেনিন সকল পরিসংখ্যান

২০ বছরের শিরোপা খরা কাটাতে কাতারে পা রাখে তারুণ্য নির্ভর সর্বোচ্চ পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল। নিজেদের উদ্বোধনী ম্যাচে সার্বিয়া ও দ্বিতীয় ম্যাচে সুইসদের বিপক্ষে জয় তুলে নেয়।

কিন্তু তৃতীয় ম্যাচে আফ্রিকার দেশ ক্যামেরুনের কাছে ১-০ গোলে হেরে বসে পাঁচবারের চ্যাম্পিয়নরা। তবে সেই ধাক্কা কাটিয়ে শেষ ষোলোয় মুখোমুখি হয় এশিয়ার দেশ দক্ষিণ কোরিয়ার। যেখানে

কোরিয়ানদের ৪-১ গোলে বিধ্বস্ত করে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করে সেলেসাওরা। যেখানে তাদের প্রতিপক্ষ গত আসরের রানার্সআপ ক্রোয়েশিয়া। এবারই কিন্তু প্রথম নয় যে বিশ্বকাপ মঞ্চে

দেশ দুটি একে অপরের মুখোমুখি হয়েছে এর আগেও এ দু’দল মুখোমুখি হয়েছে। আগামী শুক্রবার (৯ ডিসেম্বর) বাংলাদেশ সময় রাত ৯টায় প্রথম কোয়ার্টার ফাইনালের ম্যাচে মুখোমুখি হবে

ব্রাজিল ও ক্রোয়েশিয়া। সব মিলিয়ে ৪টি ম্যাচের মধ্যে তিনটিতেই জয় ব্রাজিলের একটি ম্যাচ ড্র হয়েছে। বিশ্বকাপের পরিসংখ্যানে দেশ দুটি দু’বার মুখোমুখি হয়েছে। এবারেরটি নিয়ে হবে তৃতীয়বার।

আগের দুইবারে শতভাগ জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে সেলেসাওরা। পরিসংখ্যান এবং শক্তিমত্তার দিক থেকে ব্রাজিল এগিয়ে থাকলেও একের পর এক অঘটন এবারের বিশ্বকাপ কে রোমাঞ্চকর করে

তুলেছে। ২০০৫ সালে ব্রাজিল বনাম ক্রোয়েশিয়া সর্বপ্রথম মুখোমুখি হয়েছিল আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচে। সে ম্যাচটি ১-১ গোল সমতায় ড্র হয়। এরপর ২০০৬ বিশ্বকাপে প্রথমবারের মতো বিশ্বআসরে

মুখোমুখি হয় দলদুটি। যেখানে ব্রাজিল ১-০ গোলে ক্রোয়েশিয়াকে পরাজিত করে। ২০১৪ সালে পুনরায় দু’দলের দেখা হয়। সেখানে ব্রাজিল ৩-১ গোলে ক্রোয়েশিয়াকে পরাজিত করে। সর্বশেষ

২০১৮ সালে আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচে দেখা হয়েছিল এই দুইটি ফেভারিট দলের। সেই ম্যাচেও ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে ২-০ গোলের জয় পেয়েছিল তিতের শিষ্যরা। উল্লেখ্য, আগামী শুক্রবার (৯ ডিসেম্বর)

এডুকেশন সিটি স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় রাত ৯টায় ৫ম বারের মতো মুখোমুখি হবে ব্রাজিল ও ক্রোয়েশিয়া। এটি হবে বিশ্বকাপ মঞ্চে তৃতীয় দেখা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *