ব্রেকিং নিউজঃ তাসকিনকে একাদশে আর চান না সাধারণ ভক্ত সমর্থকরা, জরিপে উঠে এসেছে বিস্ময়কর সব তথ্য

বর্তমানে টাইগার পেসারদের মধ্যে সবচেয়ে ধারাবাহিক তাসকিন আহমেদ। তাসকিনের প্রত্যাবর্তনের গল্প তো খোদ সাকিব আল হাসান সবাইকে শুনিয়ে বেড়ান। সেই তাসকিনকেই কিনা দলে দেখতে চান না দেশের আমজনতা।24updatenews এর

ফেসবুক পেজে বিভিন্ন কমেন্ট এবং অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম গুলোতে দর্শকদের বিভিন্ন কমেন্টের উপর একটি ছোট জরিপ চালানো হয়েছে। এই জরিপের মতে, শতকরা ৭০ ভাগ সমর্থকই তাসকিনকে এশিয়া কাপের একাদশে দেখতে চান

না। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজ জয়ে অন্যতম অবদান ছিল তাসকিনের। এছাড়াও বেশ কিছু সময় ধরে টেস্টের দুর্দান্ত বল করছেন এই ক্রিকেটার। একাধারে দৈনিক ৩০-৩৫ ওভারের মতো বল করেছেন তাসকিন। যা বাংলাদেশী কোনো পেস

বোলারের কল্পনারও অতীত ছিল।তাসকিনের দেখাদেখি অন্যান্য পেস বোলাররাও নিজেদের ফিটনেস সম্পর্কে সচেতন হয়ে। ফলে এখন লম্বা সময় ধরে অন্যান্য বোলাররাও বল করতে সক্ষম। তবে তাসকিনের এইসব বীরগাথা ওয়ানডে এবং টেস্টের।

টি-টোয়েন্টিতে এখনো নিজের সামর্থের পুরোটা দেখাতে পারেননি এই ক্রিকেটার। তাই হয়তো সামনে এশিয়া কাপে সাধারণ সমর্থকেরা তাসকিনকে বোলিং আক্রমণে দেখতে চাচ্ছেন না। তাসকিনের জায়গায় সদ্য দলে ফেরা হাসান মাহমুদকে

একাদশে দেখতে চান সমর্থকেরা।ব্যাপারটি কিছুটা চমকপ্রদ, হাসান মাহমুদ এর এশিয়া কাপের স্কোয়াডে থাকাটাই যেখানে কিছুটা চমক ছিল সেখানে দর্শকরা এখন হাসান মাহমুদকেই তাসকিনের জায়গায় চাচ্ছেন। এছাড়াও দর্শকদের একটি বড়

অংশ মুস্তাফিজকেও সাইড বেঞ্চে বসিয়ে রাখার পক্ষে মত দিয়েছেন। অনেকের মতেই মুস্তাফিজ নিজের সেরা সময় পিছনে ফেলে এসেছেন ফলে এখন তাকে কোনোভাবেই দলের অটো চয়েস মনে করার কোনো সুযোগ নেই। কথাগুলো খুব একটা ভুল অবশ্য নয়।

সাম্প্রতিক বেশ কিছু সময় ধরেই নিজের নামের প্রতি সুবিচার করতে পারছেন না মুস্তাফিজ। ফলে এশিয়া কাপে উইকেট এবং কন্ডিশন বিবেচনায় হয়তো মুস্তাফিজকেও বসিয়ে রাখতে পারে ম্যানেজমেন্ট। জরিপের তথ্য অনুযায়ী দেশের অন্যতম সেরা

দুই পেসার মুস্তাফিজুর রহমান এবং তাসকিন আহমেদের পক্ষে কথা বলছেন না সাধারণ জনগণ।তবে দু:খের বিষয় হলো ইনজুরিতে পড়েছেন হাসান মাহমুদ। তার পরিবর্তে দলে জায়গা পেয়েছেন মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *