ভারত-পাকিস্তান ম্যাচে দুর্দান্ত আম্পায়ারিংয়ে নজর কাড়লেন বাংলাদেশের মাসুদুর রহমান

আফগানিস্তান ও শ্রীলঙ্কার কাছে হেরে এশিয়া কাপের পঞ্চদশতম আসরের গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নিয়েছে বাংলাদেশ। সুপার ফোর পর্ব শুরু হওয়ার আগেই একরাশ হতাশা নিয়ে দেশে ফিরেছে সাকিব-মুশফিকরা।

তবে আম্পায়ারিংয়ে বাংলাদেশের দারুণভাবে প্রতিনিধিত্ব করছেন দুই আম্পায়ার গাজী সোহেল ও মাসুদুর রহমান মুকুল টেস্ট, ওয়ানডে কিংবা টি টোয়েন্টি ফরম্যাট যাই হোক ভারত-পাকিস্তান ম্যাচের কদর আলাদা। ক্রিকেটার থেকে শুরু করে দর্শক, সমর্থক সবার মাঝে টেনশন আর উত্তেজনা।

এমনকি মাঠে থাকা আম্পায়ারদেরও চাপ কম নয়। সেই পরীক্ষায় প্রথমবার সুযোগে পাস করেন মুকুল।গ্রুপ পর্বে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচে ফিল্ড আম্পায়ারের দায়িত্ব পালন করেছেন মাসুদুর রহমান মুকুল। চাপের মুহুর্তে উত্তেজনা ছাপিয়ে দারুণ সিদ্ধান্ত দিয়েছিলেন।

এমনকি আইসিসির নতুন নিয়ম অনুযায়ী স্লো ওভার রেটে দুই দেশকেই ইন প্যানাল্টি শাস্তি দেন তিনি। নতুন নিয়ম সম্পর্কে বোঝাতেও হয় বাবর-রোহিতকে। পরবর্তীতে তাদের জরিমানাও করেন স্লো ওভার রেটের জন্য। সেই ম্যাচে চতুর্থ আম্পায়ার ছিলেন গাজী সোহেল।

এবার সুপার ফোরের দ্বিতীয় ম্যাচে দু’দলের দ্বিতীয়বারের দেখায় সোহেল না থাকলেও ফিল্ড আম্পায়ারের দায়িত্ব সামলিয়েছেন মাসুদুর রহমান মুকুল। এ নিয়ে তিনি ১৮তম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে পালন করেন ফিল্ড আম্পায়ারের দায়িত্ব।

সুপার ফোরের ম্যাচটিতে ছিল টানটান উত্তেজনা। ভারতের ব্যাটিং ইনিংসে দারুণ সিদ্ধান্ত দিয়েছিলেন তিনি। তার সিদ্ধান্ত দের বিরুদ্ধে রিভিউ নিয়েও সিদ্ধান্ত বদল করাতে পারেননি দুদলের ক্রিকেটাররা।

ম্যাচের শেষ দিকে পাকিস্তানের রান তাড়ায় রবি বিষ্ণোইয়ের ১৮ তম ওভারে খুশদিলের একটি আউট আবেদন করেন ভারতের ক্রিকেটারা। বলটিকে লেগ সাইডে ওয়াইড দেন আম্পায়ার মাসুদুর রহমান মুকুল। পরবর্তীতে ভারতের অধিনায়ক রোহিত শর্মা রিভিউ নেন। তবে দীর্ঘক্ষণ টিভি রিপ্লেতে দেখে তৃতীয় আম্পায়ারও স্পষ্ট দেখতে পান বলটি ব্যাটে লাগেনি ওয়াইড ছিল।

ইনিংসের ২০ তম ওভারে আরেকটি দারুণ সিদ্ধান্ত নেন মুকুল। চতুর্থ বলে আসিফ আলিকে এলবিডব্লুর করেন আর্শদীপ সিং। ক্লোজ ব্যাট এন্ড বল হলেও মুকুল আউটের সিদ্ধান্ত দেন। পরবর্তীতে আসিফ আলি রিভিউ নিলেও দেখা যায় বল স্টাম্পে হিট করেছিল, এবং ব্যাটের সাথে সংযোগ ছিলোনা। ফলে সিদ্ধান্ত সঠিক প্রমাণিত হয় মুকুলের। এমন চাপের মুহুর্তে বাংলাদেশী আম্পায়ারের বিচক্ষণ সিদ্ধান্তের প্রসংশা করেছেন অনেকেই।

তার সঙ্গে এদিন ফিল্ড আম্পায়ারের দায়িত্বে রয়েছেন শ্রীলঙ্কার রবীন্দ্র উইমালাসিরি। এ ছাড়া টিভি আম্পায়ারের দায়িত্বে আরেক শ্রীলঙ্কান রুচিরা পালিয়াগুরুগে। টিভি আম্পায়ারের দায়িত্বে আফগান আম্পায়ার আহমেদ শান পাকতিন ও ম্যাচ রেফারির দায়িত্বে রয়েছেন জিম্বাবুয়ের অ্যান্ডি প্যেক্রফট।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *