মাত্র পাওয়াঃ হঠাৎ মেহেদী হাসানের প্রশংসায় পঞ্চমুখ ভারতের প্রধান কোচ দ্রাবিড়

ক্রিকেট ইতিহাসে ১৯৯৩ সালের জুনে ওল্ড ট্রাফোর্ডে অ্যাশেজ সিরিজে খেলতে নেমেছিলেন অস্ট্রেলিয়ার এক লেগ স্পিনার। ইংলিশ ব্যাটার মাইক গ্যাটিংজকে লেগ স্টাম্পের অনেক বাইরের এক বলে বোল্ড করে দিয়েছিলেন তিনি। সেই বলটি ‘বল দ্য সেঞ্চুরি’ নামে খ্যাতি পেয়েছিল। বোলারের নাম শেন ওয়ার্ন।

ওয়ার্নের সেই বল লেগ স্পিনারদের বড় বিজ্ঞাপন হয়ে আছে। এই অজি স্পিনারের পর গত শতাব্দিতে ক্রিকেট বিশ্ব শাসন করেছেন অনিল কুম্বলে। তাদের দেখানো পথেই উঠে এসেছেন রশিদ খান, শাদাব খান, ওয়ানিন্ডু হাসারাঙ্গার মতো স্পিনার। তারাই বর্তমান বিশ্বে ব্যাটারদের শাসন করছেন।

তাদের দাপটের মধ্যে হারিয়েই যেতে বসেছেন অফ স্পিনাররা। বর্তমান বিশ্বের বেশিরভাগ দলই লেগ স্পিনার নির্ভর। লেগ স্পিনার না থাকলে অনেকে চায়নাম্যান বোলারদের ওপর নির্ভর করেন। তবে অফ স্পিনাররা হারিয়ে গেছেন বলে মনে করেন না ভারতের প্রধান কোচ রাহুল দ্রাবিড়।

উদাহরণ দিতে গিয়ে বাংলাদেশের মেহেদী হাসান ও ইংল্যান্ডের মঈন আলীর উদাহরণ টেনেছেন তিনি। রবিবার ভারত এশিয়া কাপের দ্বিতীয় রাউন্ডে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের মুখোমুখি হচ্ছে। তাদের দলেও রয়েছেন রবচন্দ্রন অশ্বিনের মতো অফ স্পিনার। প্রয়োজন হলে তাকে খেলাবেন বলে জানিয়েছেন ভারতীয় কোচ।

দ্রাবিড় বলেন, ‘আমরা ভাগ্যবান যে অশ্বিনের মতো একজন অন্যতম সেরা স্পিনার আছে আমাদের দলে। আমার মনে হয় হংকংয়ের অফ স্পিনাররা দারুণ বল করেছে। এখন সবাই খুব বেশি অফ স্পিনার খেলায় না। তারা লেগ স্পিনার-রিস্ট স্পিনারদের প্রাধান্য দেয়। অবশ্যই তারা টি-টোয়েন্টি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে।’

কদিন আগেই বাংলাদেশের বিপক্ষে সীমিত ওভারের সিরিজ খেলেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সেই সিরিজে ছিলেন না কোনো অফ স্পিনার। এটা দেখে বিস্মিত হলেও বর্তমান সময়ের প্রেক্ষাপটে এটাকেই স্বাভাবিক মানছেন ভারতীয় এই কোচ। সাম্প্রতিক সময়ে শেখ মেহেদী বাংলাদেশের সীমিত ওভারের দলের নিয়মিত অংশ। তিনি নজর কেড়েছেন দ্রাবিড়ের।

মেহেদীর উহারণ দিয়ে ভারতীয় কোচ বলেন, ‘বাংলাদেশ মেহেদী হাসানকে খেলাচ্ছে। সম্প্রতি ওয়েস্ট ইন্ডিজ কোনো অফ স্পিনার ছাড়াই খেলেছে এবং ইংল্যান্ডের মঈন আলী আছে। তারা আসলে হারিয়ে যায়নি। আমাদেরও একজন আছে (অশ্বিন)। আমাদের প্রয়োজন হলে খেলাবো।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *