রবিবার , ৩০ জানুয়ারি ২০২২ | ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. আন্তজাতিক সংবাদ
  3. ক্রিকেট
  4. খেলাধুলা
  5. ফুটবল
  6. শিক্ষা
  7. স্বাস্থ্য এবং পরামর্শ

যেভাবে পাকিস্তানের ক্রিকেটে ঢুকছে বাজিকররা

প্রতিবেদক
Sanarbangla Publisher
জানুয়ারি ৩০, ২০২২ ৭:৫৫ পূর্বাহ্ণ

ম্যাচ পাতানো, স্পট ফিক্সিংয়ের সুবাদে ক্রিকেটে ‘বাজি’ শব্দটা বাঁকা চোখে তাকাতে বাধ্য করে। এ কারণেই, অনেক দেশেই ক্রিকেট নিয়ে বৈধ উপায়েও বাজি ধরার উপায় নেই। পাকিস্তানের মতো দেশে তো ক্রিকেট নিয়ে বা যেকোনো কিছু নিয়েই বাজি ধরা নিষিদ্ধ।

কিন্তু বাজিকর প্রতিষ্ঠানগুলো হাল ছাড়ছে না। গত এক বছর ধরে নানা উপায়ে পাকিস্তান ক্রিকেটে জড়িয়ে যাচ্ছে এই প্রতিষ্ঠানগুলো। নতুন নতুন পদ্ধতি পাকিস্তান ক্রিকেটে নিজেদের জায়গা সৃষ্টি করে নিচ্ছে তারা। ক্রিকেট পাকিস্তানে এ ব্যাপারে এক প্রতিবেদনে সালীম খালিক দেখিয়েছেন কোন কোন উপায়ে বাজিকর প্রতিষ্ঠানগুলো ঢুকছে পাকিস্তান ক্রিকেটে। খালিক বলছেন, গত এক বছরে এ নিয়ে তিনটি বাজিকর প্রতিষ্ঠান পাকিস্তান ক্রিকেটে স্পনসর হিসেবে হাজির হয়েছে।

এমনকি পাকিস্তান সুপার লিগেও (পিএসএল) স্পনসর হয়েছে একটি প্রতিষ্ঠান। প্রতিষ্ঠানগুলো ভিন্ন নাম ব্যবহার করেছে। একটি ফ্র্যাঞ্চাইজির সঙ্গে স্পনসরশিপের চুক্তি করেছে এক প্রতিষ্ঠান। আরেক বাজিকর প্রতিষ্ঠান পাকিস্তানের ঘরের মাঠের এক সিরিজে স্পনসর হয়েছিল। এবারের পিএসএলে ‘ডাফা নিউজ’ নামের এক প্রতিষ্ঠানের লোগো মাঠে ব্যবহার করতে দেখা যাচ্ছে। সীমানা দড়িতেও বিজ্ঞাপন দেখা যাচ্ছে। কিন্তু এক্সপ্রেস নিউজ খুঁজে দেখেছে,

এই ডাফা নিউজ আসলে ‘ডাফাবেট’ নামের এক বাজিকর ওয়েবসাইটের সহপ্রতিষ্ঠান। ডাফা নিউজের ওয়েবসাইটে ঢুকলে সেখান থেকেই নিবন্ধন করে পিএসএলের ম্যাচ নিয়ে বাজি ধরা যাচ্ছে। এবং ৩২ হাজার পাকিস্তানি রুপির লোভনীয় প্রস্তাব দেওয়া হচ্ছে। অথচ পাকিস্তানে অনলাইনে বাজি ধরা নিষিদ্ধ। কদিন আগে ‘স্কাই টুফোরসেভেন’ নামের এক বাজিকর ওয়েবসাইট নাম একটু বদলে নিয়ে এক সিরিজের স্পনসর হয়েছিল।

পাকিস্তান ও দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যকার করাচি টেস্ট সেই ওয়েবসাইটে লাইভ দেখানো হয়েছে। এক্সপ্রেস সে খবর জানানোর পর সরাসরি সম্প্রচার বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এদিকে ‘ওলফ সেভেন সেভেন সেভেন’ নামের আরেকটি প্রতিষ্ঠান পিএসএলের একটি ফ্র্যাঞ্চাইজির সঙ্গে জড়িত। তারা নিজেদের পরিচয় দেওয়ার সময় একটি অনলাইন ওয়েবসাইটের নাম বলেছে। কিন্তু জানা গেছে, এভাবে অন্য নাম দিয়ে বিভিন্ন ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগগুলোতে আগেও দেখা যাচ্ছে এই বাজিকর প্রতিষ্ঠানকে।

অনেক দেশেই বাজিকর প্রতিষ্ঠান ও বাজি ধরা বৈধ। কিন্তু সেসব দেশেও অর্থাৎ ইংল্যান্ড বা অস্ট্রেলিয়া ক্রীড়াবিষয়ক বাজিকর প্রতিষ্ঠান বিজ্ঞাপন দিতে পারে না। এ কারণেই তারা এখন এশিয়ান দেশগুলোতে নজর দিচ্ছে। এদিকে নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক ফ্র্যাঞ্চাইজি কর্মকর্তা জানিয়েছেন, প্রায় সব ফ্র্যাঞ্চাইজির সঙ্গেই নাকি কথা বলেছে বাজিকর প্রতিষ্ঠানগুলো। ওদিকে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করে সুস্পষ্ট কোনো উত্তর পায়নি এক্সপ্রেস

সর্বশেষ - ক্রিকেট

আপনার জন্য নির্বাচিত

ধোনি কোহলি কে পেছনে ফেলে অরেঞ্জ ক্যাপের দৌড়ে সবার আগে রাসেল

ফের সিদ্ধান্তে পরির্বতন, যা বললেন সাকিব

মাত্র পাওয়াঃ অবশেষে বাংলাদেশ জাতীয় দলের কোচ হলেন স্বদেশীয় অভিজ্ঞ এই ক্রিকেটার

যাদের চাপে আইপিএলকে না করে দিতে বাধ্য হলেন তসকিন বললেন সবার সামনেই

সৌম্যের অলরাউন্ড নৈপুণ্য, মুশফিকের ব্যাটের ঝড়ে তুলে নেন টানা দ্বিতীয় জয় !

এই দায়িত্ব পেয়ে আমি খুবই উত্তেজিত! আইপিএলে আমার স্বপ্ন পূরণ হয়েছে: রশিদ খান

দেশ ছাড়লেও দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টেও খেলবেন না সাকিব

অবিশ্বাস্য: দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে ডাবল সেঞ্চুরি, দেখেনিন সর্বশেষ স্কোর

নিজেই নিজেকে বুস্টআপ করে দুর্দান্তভাবে প্রত্যাবর্তন করেন মেহেদি হাসান মিরাজ

মাত্র পাওয়াঃ শচীন টেন্ডুলকার পাশে দাড়ালো বাংলাদেশী সাবেক ক্রিকেটারের