শ’ত্রুরা আমাকে এভাবে হারিয়ে দেবে? কখনোই না : কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে নেইমার

বর্ণিল ক্যারিয়ারে চোট যেন তার চিরসঙ্গী। গত রাশিয়া বিশ্বকাপেও চোট পেয়ে ছিটকে গিয়েছিলেন। চলতি কাতার বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে সার্বিয়ার বিপক্ষে চোট পেয়ে ছিটকে

গেছেন নেইমার। গ্রুপ পর্বে ব্রাজিল সুপারস্টারকে আর পাওয়া যাবে না। তিনি আদৌ এই বিশ্বকাপে আর খেলতে পারবেন কি না তা অনিশ্চিত। এই পরিস্থিতিতে হতাশ হলেও হার মানতে

নারাজ নেইমার। তিনি আবারও ফিরে আসার ঘোষণা দিয়েছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় দেওয়া এক পোস্টে নেইমার লিখেছেন, ‘আমার জীবনে কোনো কিছু সহজে আসেনি। আমাকে সব সময় নিজের

স্বপ্ন ও লক্ষ্যের পথে ছুটতে হয়েছে। আজকের দিনটা আমার জীবনের সবচেয়ে কঠিন মুহূর্তগুলোর একটি। আর আবারও এটি বিশ্বকাপে। হ্যাঁ, আমি চোটে পড়েছি। এটা যন্ত্রণা দেবে, তবে আমি ফিরে

আসতে পারব। কারণ আমি নিজ দেশ, সতীর্থ এবং নিজেকে সাহায্য কতে সম্ভাব্য সব কিছু করব। অনেক অপেক্ষার পর শত্রুরা আমাকে এভাবে হারিয়ে দেবে? কখনো না। আমি সৃষ্টিকর্তার সন্তান

এবং আমার বিশ্বাস চিরন্তন। ’ দারুণ ছন্দ নিয়ে বিশ্বকাপে এসেছিলেন নেইমার। সার্বিয়ার বিপক্ষেও আলো ছড়াচ্ছিলেন। কিন্তু সার্বিয়ান ডিফেন্ডারদের লক্ষ্যই ছিল যেন নেইমারকে আঘাত করা।

লুসাইল স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচটিতে ব্রাজিলের বিপক্ষে ১২টি ফাউল করে সার্বিয়া। এর ৯টিই করা হয় নেইমারকে। এবারের বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত হওয়া ১৮ ম্যাচে এটাই একজন খেলোয়াড়ের

বিপক্ষে সর্বোচ্চ ফাউলের ঘটনা! ব্রাজিলের ২-০ গোলে জেতা ম্যাচের ৮০তম মিনিটে মাঠ ছাড়েন নেইমার। এরপর সাইড বেঞ্চে বসে তাকে কাঁদতেও দেখা গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *