শেরে বাংলায় এসে প্রথম দুই ঘণ্টাতেই সবাইকে অবাক করে দিলেন নতুন কোচ শ্রীরাম

টেকনিক্যাল ডিরেক্টর হিসেবে নিয়োগ পাওয়ার পর আজই ঢাকায় এসে পৌঁছেছেন শ্রীধরন শ্রীরাম। আইপিএল ছাড়াও অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের সঙ্গে দীর্ঘদিন কাজ করার অভিজ্ঞতা সম্পন্ন শ্রীরামকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে মূলতঃ

টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশ দলের পারফরম্যান্সে উন্নতি ঘটানোর জন্য।আগেই জানা গিয়েছিল, এশিয়া কাপে খেলতে যাওয়ার আগে বাংলাদেশ দল যে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে সেখানে উপস্থিত থাকবেন শ্রীধরন শ্রীরাম। কথামতোই,

আজ দুপুর ২টা নাগাদ হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে বিমান থেকে নেমেই সোজা মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে গিয়ে হাজির হন শ্রীরাম।তিনি যখন ৩টার দিকে মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এসে পৌঁছান,

তখন মাঠে চলছে বিসিবি রেড এবং বিসিবি গ্রিন দলের মধ্যে প্রস্তুতি ম্যাচ। বিসিবি রেড দলের হয়ে খেলছিলেন, এশিয়া কাপের জন্য ঘোষিত দলটির ক্রিকেটাররা। আর গ্রিন দলের হয়ে খেলেন জাতীয় দল ও এর আশেপাশে থাকা ক্রিকেটাররা।

শ্রীধরণ শ্রীরাম মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এসেই প্রথমে সাক্ষাৎ করেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজনের সঙ্গে। এরপর সাক্ষাৎ করেন নির্বাচকদের সঙ্গে।প্রধান নির্বাহী এবং নির্বাচকদের সঙ্গে আনুষ্ঠানিকতা সেরেই

ড্রেসিংরুমে প্রবেশ করেন শ্রীরাম। সেখানে বসেই তিনি প্রস্তুতি ম্যাচের বাকি অংশ পুরোটা দেখেন। ম্যাচের শেষ পর্যন্ত সেখানে থাকেন তিনি। খেলা শেষে ক্রিকেটাররা ড্রেসিং রুমে এসে প্রবেশ করলে তাদের সঙ্গে করমর্দন করে তাদের সঙ্গে বেশ কিছুক্ষণ আলোচনা করেন।

এরপর দেখা গেলো ড্রেসিংরুমের সামনে দাঁড়িয়ে তিনি আলাপ করছেন বিসিবির টিম ডিরেক্টর এবং পরিচালক খালেদ মাহমুদ সুজনের সঙ্গে। এ সময় কোচিং স্টাফদের অন্য সদস্যরাও এসে যোগ দেন সে আলোচনায়। জেমি সিডন্স, রঙ্গনা হেরাথ এবং টেকনিক্যাল ম্যানেজার নাফিস ইকবালরা ছিলেন সে আলোচনায়।

বিকেল ঠিক ৫টার দিকে আর কারো সাথে কোনো কথা না বলে গাড়ীতে উঠে চলে যান হোটেলের উদ্দেশ্যে। ধারণা ছিল, তিনি হয়তো মিডিয়ার মুখোমুখি হতে পারেন। তবে, ঢাকায় এসেই মিডিয়ার মুখোমুখি হলেন না শ্রীধরণ শ্রীরাম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *