সদ্য পাওয়াঃ অস্ট্রেলিয়াকে দুমড়ে মুচড়ে দিয়ে মাঠিতে নামাল,জিম্বাবুয়ে

বাংলাদেশের ত্রাস রায়ান বার্ল এবার অস্ট্রেলিয়ারও শত্রু হয়ে উঠলেন। বাংলাদেশ সিরিজে ব্যাট হাতে ভেল্কি দেখানো এই অলরাউন্ডার এবার জ্বলে উঠলেন বল হাতে। তাতেই পুড়ে খাক অস্ট্রেলিয়া, তাও আবার নিজেদের মাঠেই। ১৪১ রানে অলআউট হয়ে অজিরা এখন জিম্বাবুয়ের কাছে হারের শঙ্কায়।

ওয়ানডেতে দুই দলের ফারাকটা বিস্তর। অস্ট্রেলিয়ার অবস্থান পাঁচে, বাংলাদেশকে ২-১ ব্যবধানে সিরিজ হারিয়ে জিম্বাবুয়ে ১৫ থেকে উঠে এসেছিল ১৩তম অবস্থানে। তবু দুই দলের ব্যবধানটা তো বিশালই! তার ছাপ দেখা গেছে সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচে। জিম্বাবুয়েকে দাঁড়াতেও দেয়নি অজিরা, এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ নিশ্চিত করে ফেলেছে ২-০ ব্যবধানে।

টাউন্সভিলে আজ তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল দুই দল। টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল জিম্বাবুয়ে। সিদ্ধান্তটা যে ভুল কিছু ছিল না, তা প্রথম থেকেই প্রমাণে ব্যস্ত হয়ে পড়েন জিম্বাবুইয়ান বোলাররা। ১০ রানেই তুলে নেয় অস্ট্রেলিয়ার দুই উইকেট। এরপর থেকে অজিরা উইকেট খুইয়েছে নিয়মিত বিরতিতে। এক পর্যায়ে ৭২ রানে ৫ উইকেট খুইয়ে ১০০ রানের আগেই গুটিয়ে যাওয়ার শঙ্কায় পড়ে যায় দলটি।

ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার একপাশ আগলে রেখে ৯৬ বলে ৯৪ রানের ইনিংস খেলেছিলেন বলে বাঁচোয়া, ষষ্ঠ উইকেটে তাকে কিছুটা সঙ্গ দিয়েছিলেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। তাদের ইনিংস সর্বোচ্চ ৫৭ রানের জুটিতে ভর করেই ১০০ রান ছাড়ায় অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহ। দেখছিল বড় রানের আশাও।

তবে এরপরই ২৭তম ওভারে আক্রমণে আসা বার্লের ঝড়ে লণ্ডভণ্ড হয়ে যায় অস্ট্রেলিয়া। বার্ল ম্যাক্সওয়েলকে ফেরান প্রথমে। এক বল পরই অ্যাশটন অ্যাগারকে রানের খাতা খোলার আগেই বিদায় করেন তিনি। ওয়ার্নার তখনো গলার কাঁটা হয়ে ছিলেন জিম্বাবুয়ের। পরের ওভারে সেই ওয়ার্নারকেও বিদায় করেন তিনি।

৩১তম ওভারে আবারও আক্রমণে এসে মিচেল স্টার্ক আর জশ হেইজেলউডকেও বিদায় করেন বার্ল। ৩ ওভারে ১০ রান খরচায় বার্ল পান ৫ উইকেট। তাতেই ১৪১ রানে শেষ হয় অস্ট্রেলিয়ার ইনিংস। দলটিতে মাথাচাড়া দেয় জিম্বাবুয়ের কাছে হারের শঙ্কা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *