সব হিসাব-নিকাশই বদলে যাচ্ছে! ভারতকে এক সপ্তাহ সময় দিল সাফ

দরজায় কড়া নাড়ছে দক্ষিণ এশিয়ান ফুটবল ফেডারেশনের দুটি টুর্নামেন্ট। আগামী ৬ থেকে ১৯ সেপ্টেম্বর নেপালের কাঠমান্ডুতে হবে নারী সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ। আর আগামী ৫ থেকে

১৪ সেপ্টেম্বর শ্রীলঙ্কার কলম্বোয় অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা সাফ অনূর্ধ্ব ১৭ চ্যাম্পিয়নশিপ। দুই টুর্নামেন্টেই অংশগ্রহণ করার কথা দক্ষিণ এশিয়ার বৃহত্তম ফুটবল শক্তি ভারতের। কিন্তু ফিফার

নিষেধাজ্ঞায় অনিশ্চিত হয়ে গেছে টুর্নামেন্ট দুটিতে দেশটির অংশগ্রহণ। তৃতীয় পক্ষের হস্তক্ষেপের অভিযোগে ফিফা নিষিদ্ধ করেছে অল ইন্ডিয়া ফুটবল ফেডারেশনকে (এআইএফএফ)। এই

নিষেধাজ্ঞা তুলে না নেয়া পর্যন্ত ভারত অংশগ্রহণ করতে পারবে না ফুটবলের কোনো টুর্নামেন্টেই। এদিকে, দেশটিকে নিয়েই গ্রুপিং ও সূচিও চূড়ান্ত হয়েছে দুই টুর্নামেন্টেরই। ফিফা নিষেধাজ্ঞার

পর সব হিসাব-নিকাশই বদলে যাচ্ছে। বুধবার (১৭ আগস্ট) সাফের নির্বাহী কমিটির অনলাইন সভায় এই দুই টুর্নামেন্টে ভারতের অংশগ্রহণ নিয়ে হয়েছে বিস্তর আলোচনা। আগে থেকে নির্ধারিত

এ সভায় সভাপতিত্ব করেছেন সাফের সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন। সে সভায় সিদ্ধান্ত হয়েছে, সাফ নারী চ‌্যাম্প‌িয়ন‌শিপ ও অনূর্ধ্ব ১৭ চ‌্যাম্প‌িয়ন‌শিপের সূচি আপাতত অপ‌রিব‌র্তিত থাকব‌ে।

ভারত সাফ‌ে খেল‌বে কি না, তা আগামী সপ্তা‌হে ফিফার সিদ্ধান্ত‌ের ওপর নির্ভর কর‌ছে। সভায় সিদ্ধান্ত হয়েছে ভারতের জন্য আগামী এক সপ্তাহ অপেক্ষা করার। আগামী মঙ্গলবার পর্যন্ত ফিফার

সিদ্ধান্তের আপডেট দেখেই সিদ্ধান্ত নেয়া হবে এই দুই টুর্নামেন্টে ভারত খেলবে কি না। যদি এর মধ্যে এআইএফএফের ওপর থেকে ফিফা নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়, তবে ভারত অংশগ্রহণ করতে

পারবে টুর্নামেন্টে। আর যদি ফিফা থেকে নতুন কোনো সিদ্ধান্ত না আসে, তবে ভারতকে বাদ দিয়েই টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হবে। সাফ ও বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন বলেন,

‘সাফের ক্যালেন্ডার অনুযায়ী হবে বয়সভিত্তিক ও নারী সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ। ভারতের ফিফার নিষেধাজ্ঞা বিষয়ে আগামী মঙ্গলবার পর্যন্ত অপেক্ষা করবে সাফ।’ তবে ভারত যদি অংশগ্রহণ করতে না পারে

তবুও বদলাবে না টুর্নামেন্টের গ্রুপিং। তবে ভারতকে বাদ দিয়ে নতুন করে ফিকশ্চার সাজাতে হবে। নারী সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে দল আছে ৭টি। ভারত বাদ পড়লে টুর্নামেন্ট হবে ৬ দলের। যে কারণে গ্রুপিং

বদলানোর প্রয়োজন দেখছে না ফেডারেশন। তবে অনূর্ধ্ব -১৭ চ্যাম্পিয়নশিপে ভারতকে বাদ দিলে দল থাকবে ৫টি। সে ক্ষেত্রে টুর্নামেন্ট লিগভিত্তিক হবে নাকি অন্য কোনো পদ্ধতিতে, সেটা নির্ধারণ করবে সাফ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *