Friday , 26 August 2022 | [bangla_date]
  1. ! Без рубрики
  2. android dating review
  3. artist dating review
  4. babel review
  5. bhm dating review
  6. black dating review
  7. Buffalo+NY+New York hookup sites
  8. cooking tips and recipes
  9. do payday loans affect credit
  10. equestrian dating review
  11. flirtymature review
  12. hookup apps for couples hookuphotties reviews
  13. lesbian hookup hookuphotties sign in
  14. mingle2 review
  15. mousemingle review

সেই কলেজশিক্ষিকার মৃত্যুর প্রতিক্রিয়ায় যা বললেন সাবেক স্বামী

প্রতিবেদক
raa raa
August 26, 2022 5:08 am

কলেজশিক্ষিকা খাইরুন নাহারের মৃত্যু মেনে নিতে পারেননি সাবেক স্বামী জহুরুল ইসলাম বাবলু। তিনি বলেন, আমার সঙ্গে তার সম্পর্ক ছিল না। কিন্তু ছেলেদের সঙ্গে তো ছিল।

আমি যেন তাদের মায়ের অভাব পূরণ করতে পারি- এজন্য দোয়া করবেন।সহপাঠীর সঙ্গে প্রথম বিয়ে হয় নাটোরের সেই কলেজশিক্ষক খায়রুন নাহারের। যদিও বন্ধুত্ব থেকে তাদের প্রেম হয়েছিল।

চার বছর প্রেমের পর সংসার গড়েছিলেন তারা। নানা টানাপোড়েন আর মান-অভিমান থাকলেও একসঙ্গে কাটিয়েছেন ১৯ বছর। এর মধ্যেই ২০২০ সালে বিচ্ছেদ ঘটান এ দম্পতি।

তাদের দুই ছেলেও রয়েছে।জহুরুল ইসলাম বলেন, ও খারাপ না ভালো- এটা নিয়ে আমি আর কিছু বলব না। ও-ই আমাকে তালাক দিয়ে চলে গেছে। আমাদের সংসারে দুটি ছেলে রয়েছে।

বড় ছেলে বৃন্ত রাজশাহীতে একটি কলেজে একাদশ শ্রেণিতে পড়ে। আর ছোট ছেলে অর্ক বাঘার একটি স্কুলে দ্বিতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থী।তাদের বিচ্ছেদের পর বৃন্ত কখনো দাদার বাড়ি আবার কখনো নানার বাড়িতে থাকেন।

আর অর্ক তার বাবার কাছে দাদার বাড়িতেই থাকেন।পরিচয়, প্রেম ও বিয়ে নিয়ে জহুরুল ইসলাম বলেন, আমরা দুজনই রাজশাহী কলেজে দর্শন বিভাগে পড়তাম।

১৯৯৫-৯৬ ব্যাচের শিক্ষার্থী। সেখানেই পরিচয়, বন্ধুত্ব ও প্রেম। অনার্স পরীক্ষা দিয়েই ২০০০ সালের সেপ্টেম্বরে আমরা বিয়ে করেছি। পরে দুজনই মাস্টার্স করেছি। আমাদের মধ্যে বিচ্ছেদ হয় ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারিতে।

কলেজছাত্রকে সাবেক স্ত্রীর বিয়ের বিষয়ে জহুরুল বলেন, ওর ভালো লেগেছিল করেছে। ভালো থাকার আশা নিয়েই তো করেছিল।

জানা গেছে, মান-অভিমান করেই তাদের সেই সংসার ভেঙে গিয়েছিল। স্বামী জহুরুল ইসলামকে খায়রুনই তালাক দিয়েছিলেন। জহুরুল ইসলামের বাড়ি রাজশাহীর বাঘা উপজেলার আড়ানী ইউনিয়নের পান্নাপাড়া গ্রামে। বর্তমানে তিনি পান্নাপাড়া আব্দুর রহমান বিএম কলেজের প্রভাষক। প্রথম সংসার ভেঙে যাওয়ার পর তিনি আর বিয়ে করেননি।

স্থানীয়রা জানান, লেখাপড়া শেষ করেই কলেজে শিক্ষকতা শুরু করলেও বহুদিন বেতন হয়নি জহুরুল ইসলামের। সম্প্রতি ঘোষিত এমপিও তালিকায় তার বেতন চালু হয়। এর আগে তাকে আর্থিক চরম অনটন পার করতে হয়েছে। সেই সময়টিতে তিনি অটোরিকশাও চালিয়েছেন। এর মধ্যেই পারিবারিক অশান্তি থেকে তাকে ছেড়ে চলে যান স্ত্রী।

সর্বশেষ - ক্রিকেট

আপনার জন্য নির্বাচিত

জুভেন্টাসের বিপক্ষে পিএসজির শক্তিশালী একাদশ ঘোষণা

নির্বাচকদের বৃদ্ধা আঙ্গুল দেখিয়ে বাঘের গর্জন দিয়ে কিছুদিনের মধ্যেই আবারও টি-২০ দলে ফেরার সুযোগ থাকছে মাহমুদউল্লাহর

ব্রেকিং নিউজঃ স্ত্রী খাইরুন নাহারকে যেভাবে মা’রা হয়েছে নিজেই জানালেন স্বামী মামুন

ফাইনালে পাকিস্তানের বিপক্ষে শক্তিশালী একাদশ ঘোষণা করলো,শ্রীলঙ্কা

মাত্র পাওয়াঃ হঠাৎ মেহেদী হাসানের প্রশংসায় পঞ্চমুখ ভারতের প্রধান কোচ দ্রাবিড়

ইয়াসির আলী নাকি মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ শেষ পর্যন্ত কে থাকছে বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি স্কোয়াডে

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে আগে বিশাল দুসংবাদ পেলো ভারত

অবাক কান্ডঃ ম্যাচ হেরেও আইসিসি থেকে বিশাল বড় সুখবর পেলেন সাকিব

শ্রীরামের ক্যাম্পে ওপেনিংয়ে নেমে পুরনো হিংস্রতা ব্যাটিং টান্ডব চালাছেন সাব্বির রহমান দেখুন বিস্তারিত

ম্যাচ হেরেও অবশেষে আশার বানী শুনালেন সাকিব, খেলবেন ফাইনাল